বিশনন্দীতে উদ্ধারকৃত লাশটি গহরদীর ফাতেমার

0
2687

স্টাফ রিপোর্টার: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় বিশনন্দী ইউনিয়নের বিশনন্দী গ্রামের একটি টিনের ঘরের মাটি খুড়ে সেখান থেকে ফাতেমা( ২২) স্বামী পরিত্যাক্তা মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ফাতেমা উপজেলার গহরদী গ্রামের বিল্লালের মেয়ে ।

শনিবার (১৫ আগস্ট) বিকেল থেকে মাটি খুঁড়ে লাশ উদ্ধার শুরু করে পুলিশ। রাত ৮টায় গিয়ে ওই যুবতীর লাশ পায়। ৮ দিন আগে সে নিখোঁজ হয়।
গোপালদী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আজাহার জানান, বিশননন্দী গ্রামে জনৈক ডালিমের জমিতে তিনি ৩ মাসে আগে থেকেই ঘর নির্মান করছিলেন। ঈদের আগে কাজ বন্ধ রেখে তারা চলে যান। ঈদের পর শনিবার থেকে আবারো কাজ শুরু করেন তারা। পরে কাজ করার এক পর্যায়ে মৃত মানুষের গন্ধে সন্দেহ হয় তাদের। পরে এলাকাবাসীর সহায়তায় পুলিশে সংবাদ দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করতে কাজ শুরু করে।

পুলিশ ও স্থানীয়দের ধারণা, যেকোন ঘটনায় হত্যাকান্ডের পর নিহতের লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে এখানে ঘরের নীচে পুতে রেখেছে অজ্ঞাতরা।
ঘটনাস্থলে যাওয়া আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত শওকত জানান, ধারণা করা হচ্ছে হত্যাকান্ডের পর লাশ গুমের জন্য এখানে কেউ পুতে রেখেছিল। লাশটি উদ্ধারে কাজ করছে পুলিশ। লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য সদর জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে। এ ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করতে কাজ করছে পুলিশ। এই ব্যাপারে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, স্থানীয় এক যুবকের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে জানা গেছে। তার মামা বাড়ি বিশনন্দীতে থাকতো বলে জানা গেছে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here