লকডাউন অমান্য করে বিশনন্দি ফেরী ঘাটে চলছে সবধরনের যানবাহন

0
311

স্টাফ রিপোর্টার: কঠোর লকডাউনে সরকার নির্দেশিত বিধিনিষেধ অমান্য করে আড়াইহাজারে বিশনন্দি ফেরী ঘাটে নির্বিঘ্নে চলছে সকল ধরনের যানবাহন। ইজারাদার প্রভাব খাটিয়ে এই ধরনের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ফলে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার আশংকা রয়েছে।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, প্রাইভেট কার, সিএনজি,মাইক্রো,হায়েজসহ বিভিন্ন ধরনের যানবাহন অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে ফেরী দিয়ে চলাচল করতে। সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কঠোর নজরদারি বাড়াতে স্থানীয়রা দাবি জানান। নয়তো স্বাস্থ্য বিধি না মানায় করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে না।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সোহাগ হোসেন জানান,এ্যাম্বুলেন্স, জরুরি পন্য, বিদেশফেরত যাত্রী ছাড়া সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনে সড়ক,রেল, নৌপথে গণপরিবহন ও সকল যান চলাচল বন্ধ থাকবে। এবিষয়ে দ্রুত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে। অথচ নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে বিশনন্দি ফেরী ঘাটে সকল ধরনের যানবাহনে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে সচল রাখতে দেখা গেছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি আনিচুর রহমানের দৃষ্টি আকর্ষন করা হলে তিনি বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান।

এদিকে,  ঈদের তৃতীয় দিনেও আড়াইহাজার উপজেলার মেঘনা নদীর বিভিন্ন স্থানে ট্রলারসহ বিভিন্ন নৌযানে করে উঠতি বয়সী তরুণ তরুণীরা ডিজে পার্টিতে মেতেছে। এমনকি উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অটোরিকশায় উচ্চস্বরে সাউন্ড বক্স বাজিয়ে ছেলে মেয়েরা দলবেঁধে ঘুরতে দেখা গেছে। করোনার অতিমারি পরিস্থিতিতে কঠোর লকডাউনের মধ্যে এমন পার্টি ও দলবেঁধে স্বাস্থ্য বিধির তোয়াক্কা না করে কিভাবে প্রশাসনের দৃষ্টি এড়িয়ে হয় তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) দিনব্যাপী চলে এসব ডিজে পার্টি। অভিযোগ রয়েছে এর আগে বৃহস্পতিবার বিকেলের পর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত এসব পার্টিতে নারী ড্যান্সারদেরকেও নাচগান করতে দেখা গেছে। ছোট ছোট ট্রলারে এসব পার্টির আড়ালে অশ্লীলতা চলে বলেও স্থানীয়রা জানান।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here