শীর্ষ সন্ত্রাসী, ডাকাত ও মাদক ব্যবসায়ী জহিরুল দু্হসহযোগিসহ আটক

0
528

মাসুম বিল্লাহ: আড়াইহাজার থানা পুলিশ তালিকা ভুক্ত সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ী, একাধিক ডাকাতি ও মাদক মামলার আসামী জহিরুল ইসলাম ওরফে ঝইক্কাকে ( ৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ । শনিবার ভোরে উপজেলার ব্রাক্ষন্দী ইউনিয়নের সুলপানদি গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত জহিরুল ওই গ্রামের হাফেজ মিয়ার ছেলে। এ সময় তার দুই সহযোগিকেও গ্রেফতার  করা হয়। এরা হলেন সোনার গাঁয়ের মোতাহারের ছেলে বাকির (৩০) ও একই অনুকুলের ছেলে মিঠু (৩৫)।

আড়াইহাজার থানার উপপরিদর্শক (এস আই) গাজী শামীম আমাদের আড়াইহাজার অনলাইনকে জানান, জহিরুল দীর্ঘ দিন ধরে প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় থেকে আড়াইহাজার উপজেলার সুলপানদি. মারুয়াদী, নরিংদী, লস্করদীসহ গোটা উপজেলায় ইয়াবা, ফেন্সিডিল, গাঁজাসহ বিভিন্ন মাদক বিক্রি এবং সন্ত্রাসী ও ডাকাতির কার্যক্রলাপ করে আসছিল।

যার ফলে ধ্বংস হতে চলছে যুব ও তরুণ সমাজ। এই সকল অভিযোগের কারণে গোপনে খবর পেয়ে এস আই গাজী শামীম, এস আই শফিকুল ইসলাম ও এএস আই আশারাফুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্সসহ তার বাড়ি ঘেরা করে ফেলে। এ সময় পুলিশ তাকে ২শ পিছ ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি, মাদকসহ ৪টি মামলার ওয়ারেন্টসহ মোট ৭টি মামলা রয়েছে। তাছাড়া ও স্বারাস্ট মন্ত্রনালয়, আইজিপিসহ বিভিন্ন স্থানে ৫টি অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে জহিরুলকে গ্রেফতারের খবর পেয়ে শনিবার সকাল থেকে ২০ জন ভুক্তভোগী থানায় এসে বিভিন্ন অভিযোগ দায়ের করেন। আবুল কাশেম নামের একজন আমাদের আড়াইহাজার অনলাইনকে জানান, তার অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ট হয়ে পড়েছে। থানার একজন দারোগার উপরও হামলা করে কুখ্যাত ডাকাত জহিরুল। জহিরুলকে গ্রেফতারের ফলে জনমনে স্বস্থির ফিরে এসেছে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here